মেনু নির্বাচন করুন
Text size A A A
Color C C C C
পাতা

একটি বাড়ী একটি খামার

১। প্রাথমিক সমিতি গঠন,  সঞ্চয়ের মাধ্যমে পুজি গঠন এবং প্রকল্প গ্রহণে পরামর্শ প্রদান ও এতদসংক্রামত্ম যাবতীয় তথ্য ও ফরম সরবারহ করা ।

 ২। সদস্যদের সঞ্চয়, প্রকল্প থেকে দেয় উৎসাহ বোনাস, ঘূর্ণায়মান ঋণ তহবিলের মাধ্যমে পুজি গঠন।

৩। ২০১৩ সালের মধ্যে প্রকল্পাধীন সকল গ্রামের প্রতিটি পরিবারকে কৃষি, মৎস্যচাষ, পশুপালন ইত্যাদি কাজের মাধ্যমে একটি কার্যকর ‘‘খামার বাড়ি’’ হিসেবে গড়ে তোলা।

৪। ২০১১ সালে প্রকল্পাধীন প্রতি গ্রাম থেকে ৫ জন করে ( কৃষি, মৎস্যচাষ, হাঁস-মুরগী পালন, বৃক্ষ নার্সারী ও হটিকালচার ট্রেডের প্রতি বিষয়ে একজন) মোট= ১৪৪ জন সদস্যকে জীবিকাভিাত্তক প্রশিক্ষণ দিয়ে খামার স্বেচছাসেবী গঠন করা হয়েছে এবং অন্যান্য বিষয়ে গ্রামকর্মী সৃজন করা হয়েছে।

৫। ২০১২ সালের জুনের মধ্যে ঋণ সহায়তার মাধ্যমে নিজে/সদস্যদের নিয়ে প্রতি গ্রামে ৫টি বিষয়ভিত্তিক প্রশিক্ষিত কর্মীদের বাড়িতে প্রদর্শনী খামার গড়ে তোলা।

৬। ২০১৩ সালের মধ্যে অনিবাসী ভূমি মালিকদের ভূমিসহ গ্রামীণ সকল সম্পদের সর্বোত্তম ব্যবহার ও সম্পত্তির মালিকানা নিশ্চিত করা।

৭। ২০১৩ সালের মধ্যে প্রকল্প থেকে গ্রাম সংগঠনের অতিদরিদ্র/দরিদ্র সদস্যদের মাসিক সঞ্চয়ের বিপরীতে সমপরিমান কন্ট্রিবিউটরি মাইক্রো সেভিং প্রদানের মাধ্যমে প্রতিটি পরিবারের ব্যক্তি সঞ্চয় বছরে নূন্যতম ৫,০০০/= টাকায় উন্নীত করা যা ২ বছরে ১০ হাজার এবং ৫ বছরে ৪০ হাজার টাকায় উন্নীত হবে।

৮। প্রধান কৃষি ফসলের পাশাপাশি আদা, হলুদ, পিঁয়াজ, রসুন, জিরা, মসলা, বিভিন্ন ফল এবং অন্যান্য অপ্রধান কৃষি ফসলের উৎপাদন বৃদ্ধিতে প্রতিটি বাড়ি সংশিস্নষ্ট জমি ব্যবহার করা।

৯। মাছ চাষের পাশাপাশি গ্রামীণ জনগণের মাধ্যমে অন্যান্য  aquatic culture  কার্যক্রম সম্প্রসারণ করা।